ব্রেকিং: সুবর্ণচরের সেই ধর্ষকের এক বছরের জামিন উন্নয়ন কাজে মানুষের যেন ক্ষতি না হয় : প্রধানমন্ত্রী ‘কারিগরি ত্রুটি’তে আজ বসছে না পদ্মা সেতুর নবম স্প্যান সুপ্রভাত ও জাবালে নুরের সকল বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা কুমিল্লায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১১ মামলার আসামি নিহত পরিবহনের লাইসেন্স দেখছেন শিক্ষার্থীরা ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি সফলভাবে সম্পন্ন জাতির পিতার শততম জন্মদিন আজ ঢাকা-কলকাতা লঞ্চ সার্ভিস চালু হচ্ছে ২৯ মার্চ সুস্থ রাজনৈতিক পরিবেশ ফেরাতে ডাকসু ভূমিকা রাখবে: প্রধানমন্ত্রী

সংলাপে বসবেন প্রধানমন্ত্রী : ওবায়দুল কাদের

জাতীয়, জেলা খবর, প্রধান সংবাদ, প্রশাসন, ব্রেকিং | ৩০ পৌষ ১৪২৫ | Sunday, January 13, 2019

image-27043-1547364437.jpgওয়ার্ল্ড নিউজ বিডি ডট কম,ঢাকা প্রতিনিধি,১৩ জানুয়ারি : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে যেসব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ হয়েছিল, তাদের প্রধানমন্ত্রী ফের আমন্ত্রণ জানাবেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

 

আজ রবিবার (১৩ জানুয়ারি) সকালে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা এবং আশেপাশের জেলা, উপজেলা, পৌরসভা পর্যায়ের দলীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়রদের সঙ্গে যৌথ সভায় তিনি এ কথা জানান।

 

তিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগ সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের সব রাজনৈতিক দলকে সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। ঐক্যফ্রন্ট ও যুক্তফ্রন্টসহ ৭৫টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে গণভবনে সংলাপ হয়েছিল। এখন নির্বাচন শেষ হয়েছে, নেত্রী শনিবার আমাদের সঙ্গে ওয়ার্কিং কমিটি ও উপদেষ্টা পরিষদের যৌথ বৈঠকে বলেছেন যে, যাদের সঙ্গে সংলাপ হয়েছে— তাদেরকে আমন্ত্রণ করবেন, আহ্বান করবেন, নিমন্ত্রণ করবেন। তাদের সঙ্গে কিছু মতবিনিময় করবেন এবং তাদের আপ্যায়নের ব্যবস্থা থাকবে। এ ব্যাপারে আমরাও সবাই একমত, যারা সংলাপ এসেছিলেন— তাদের ফের নেত্রী সংলাপে আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন। একসঙ্গে সবাইকে দাওয়াত দেওয়া হবে। সেটি খুব শিগগিরই জানিয়ে দেওয়া হবে। সব রাজনৈতিক দল গণভবনে আমন্ত্রিত। 

 

ঐক্যফ্রন্ট আছে, যুক্তফ্রন্ট আছে, ১৪ দল আছে, জাতীয় পার্টি আছে, অন্যান্য যেসব দল আছে— সবাইকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। যাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী সংলাপ করেছিলেন, তাদের চিঠি দিয়ে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

 

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, যে বিএনপির সঙ্গে জামায়াত রয়েছে, সে বিএনপির সঙ্গে ঐক্য করে ড. কামাল হোসেন ভুল করেছেন। এ স্বীকারোক্তি তিনি যদি দেন, তাহলে জাতি খুশি হবে। বিএনপির সঙ্গে জামায়াত আছে, এটা সবাই জানে। এটা তার জানা ছিল না।

 

তিনি বলেন, আমরা বিরোধী প্রতিপক্ষকে দুর্বল মনে করি না। তারা এলে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ভালো লাগে। 

 

একই সঙ্গে তিনি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১৯ জানুয়ারির সমাবেশে ব্যানার ফেস্টুন না নিয়ে আসার আহ্বান জানান।