ব্রেকিং: সাভারে গুলিবিদ্ধ লাশের গায়ে লেখা ‘আমি ধর্ষণের মূল হোতা’ এমপিদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ চতুর্থ মেয়াদে জনবন্ধু শেখ হাসিনা : সবিনয় প্রত্যাশা শপথ না নিলে সরকারি সুবিধা পাবেন না ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীরা নতুন মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক ২১ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর সংলাপ কী নিয়ে জানতে চান ড. কামাল শরীয়তপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২ শ্রমিকরা কাজে না ফিরলে মজুরি দেয়া হবে না : বিজিএমইএ সংলাপে বসবেন প্রধানমন্ত্রী : ওবায়দুল কাদের সুস্থ হয়ে দেশে ফিরছেন কাজী হায়াৎ

আলু চাষ করে পাহাড়িদের দিন বদল

কৃষি কথা, ব্রেকিং | ১৭ মাঘ ১৪২২ | Saturday, January 30, 2016

potato1454146069.jpgওয়ার্ল্ড নিউজ বিডি ডট কম,হবিগঞ্জ প্রতিনিধি,৩০ জানুয়ারী : চারদিকে সবুজ আর সবুজ। এর মাঝখানের পতিত জমিতে রোপন করা হয়েছে উন্নত জাতের আলু। এর ভাল ফলন হওয়ায় দিন বদলের স্বপ্ন দেখছেন পাহাড়িরা। পাহাড়ি বালু মাটিতে যে কোনো ফসল চাষ হয়ে থাকে। তবে এক্ষেত্রে কঠোর শ্রম দিতে হচ্ছে তাদের।

বেশ ক’বছর ধরেই হবিগঞ্জের পাহাড়িরা পতিত জমি বের করে আলু চাষ করছেন। তাতে করে তারা সফলতা পেতে শুরু করেছেন। একজনের সাফল্য দেখে উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন অন্যরাও। পতিত জমি বের করে আলু চাষ শুরু করছেন তারা। পাহাড়ের ছড়ায় জমাট করা পানি দিয়ে আলু চাষ করে যেতে ক্ষুদ্র জাতিসত্ত্বার মানুষজনকে তেমন কোনো সমস্যায় পড়তে হচ্ছে না।

আলু চাষ করতে তেমন কোনো সার প্রয়োগ করাও লাগছেনা তাদের। তারা গরুর গোবর ব্যবহার করছেন। এতে আলু ফলাতে ভাল ফল পাচ্ছেন তারা। পাড়াড়িদের আগ্রহ দেখে আলু চাষকে এগিয়ে নিতে কাজ করছে স্থানীয় কৃষিবিভাগও।

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল, নবীগঞ্জ, মাধবপুর, চুনারুঘাট উপজেলার একাংশে পাহাড় অবস্থিত। এসব পাহাড়ে বসবাস করছে ক্ষুদ্র জাতিসত্ত্বার এসব পরিবার। এরা ছাড়াও পাহাড়ে বসবাসকারী মুসলমান ও হিন্দু পরিবারের লোকেরা শীতকালে পাহাড়ের পতিত জমি বের করে আলু করছেন।

জানা গেছে,  পাহাড়ের টিলায় চাষ হচ্ছে আনারস, কাঠাল, লিচু, লেবু, আমসহ নানা ফসল। আর নিচের পতিত জমিতে চাষ করা হচ্ছে গোল আলু। এ আলুর চাষকে আরো এগিয়ে নিতে চান পাহাড়িরা। এজন্য তারা কঠোর শ্রম দিচ্ছেন।

বাহুবলের কারিগজিয়ায় পুটিং দেববর্মা বলেন, পতিত জমিতে বিগত দিনে কোন ফসল চাষ হতো না। আমরা চেষ্টা করে আলু চাষ করেছি। এ চেষ্টা কাজে লেগেছে। তাই ভাল লাগছে।

তিনি বলেন, ‘আলু চাষ লাভজনক। তবে শ্রম দিতে হচ্ছে অনেক। শ্রমের মাধ্যমে অর্জিত হচ্ছে বাম্পার ফলন।’

এ ব্যাপারে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. শাহ আলম বলেন, ‘এ মৌসুমে জেলায় বিশাল এলাকাজুড়ে আলু চাষ হয়েছে। ইদানিং শীতকালে সমতল এলাকার মতো  পাহাড়েও আলু চাষ করা হচ্ছে।’

কৃষিবিভাগের পক্ষ থেকে চাষিদের নানাভাবে সহায়তা করা হচ্ছে।’